• নভেম্বর ২৮, ২০২১

গোলাম কাসেম ড্যাডির জন্ম ৫ নভেম্বর ১৮৯৪ সালে, অবিভক্ত ভারতের জলপাইগুড়িতে। জন্মের অল্প সময় পরে তাঁর মা গত হন। নবজাতকের নাম রাখা হয় গোলাম কাসেম আল্লারাখা। পৈত্রিক বাড়ি ফরিদপুরের মাদারীপুর। বাবা খানসাহেব গোলাম রাব্বানী ছিলেন কলকাতা আইজির পুলিশ সুপারিনটেনড্যান্ট। বাবা চেয়েছিলেন, ছেলে তাঁর চেয়ে বড় কিছু হবে। কিন্তু ছেলে পাঠ্যপুস্তক বাদ দিয়ে ছবি তোলা, লেখালেখি, সার্কাস, থিয়েটার, ম্যাজিক, ঘোড়দৌড় আর বায়োস্কোপের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকতেন। তাই আইএ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ছেলেকে সাবরেজিস্ট্রার পদে চাকরির ব্যবস্থা করেন। ১৯৪৯ সালে ডিস্ট্রিক রেজিস্ট্রার হিসেবে অবসর নেন ড্যাডি। আর পরলোক গমন করেন ১৯৯৮ সালে ৯ জানুয়ারি। ১০৪ বছরের কিংবদন্তীর এক বর্ণাঢ্য জীবন যাপন করেছেন তিনি। ১৯১৫ সালে সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে আইএ ক্লাসের ছাত্র থাকাকালে কলকাতা ইউনিভার্সিটি ইনফ্যানট্রি কোরের সদস্য হিসেবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন ড্যাডি। বিহারের মধুপুরে প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অবসরে গল্প লেখার সূচনা। ১৯১৮ সালে তাঁর প্রথম গল্প সুন্দরী প্রকাশিত হয় বঙ্গীয় মুসলমান সাহিত্য পত্রিকায় [প্রথম বর্ষ তৃতীয় সংখ্যা, কার্তিক ১৩২৫]। ২৬ বছর বয়সী কোনো মুসলমান লেখকের এমন গল্প সে সময়ে অভাবিতপূর্ব।